• 56

সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে এন মজুমদারকে কমুউনিটি নেতাদের সমর্থন

সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে এন মজুমদারকে কমুউনিটি নেতাদের সমর্থন

সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে এন মজুমদারকে কমুউনিটি নেতাদের সমর্থন

নিউইয়র্কের আসন্ন সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে ১৮ ডিষ্ট্রিক্ট-এ নিজের প্রার্থীতা ঘোষনা করেছেন বাংলাদেশি আমেরিকান কমুউনিটি কাউন্সিলের সভাপতি আইনজীবি এন মজুমদার। এরই ধারাবাহিকতায় আজ তার প্রথম নির্বাচনী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হলো ব্রঙ্কসে। সভায় ব্রঙ্কসের প্রায় সকল কমুউনিটি নেতারা এন. মজমুদারের প্রতি তাদের সমর্থন ব্যক্ত করেন। সভায় বক্তারা আগামী ২০২১ সালের জুনে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে এন মজুমদারের প্রার্থীতা চুড়ান্ত করা এবং বিজয় ছিনিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় উদ্যেগ গ্রহণ করার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানানো হয়।

৫ অক্টোবর সোমবার রাতে খলিল পার্টি হলে আয়োজিত এ মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী। সভা পরিচালনা করেন শামীম মিয়া। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন মঞ্জুর চৌধুরী জগলু ও এ ইসলাম মামুন।


মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, আমেরিকান বাংলাদেশী ওয়েল ফেয়ার এসোসিয়েশনর সভাপতি ও মূল ধারার রাজনীতিবিদ আব্দুস শহিদ, ফেঞ্চুগঞ্জ অর্গানাইজেশন ইউএসএ ইনক এর সভাপতি জুনেদ আহমেদ চৌধুরী, ব্রঙ্কস বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আবদুল গাফফার চৌধুরী, বাংলাদেশ সোসাইটির ট্রাষ্ট্রি বোর্ডে সদস্য আব্দুল হাসিম হাসনু, বাংলাদেশী সোসাইটি অব বঙ্কসের সাবেক সভাপতি মাহবুব আলম, কমুউনিটি এ্যাক্টিভিস্ট সিরাজ উদ্দিন আহমেদ সোহাগ, আমি চাই এই ডিস্ট্রিক্ট থেকে একজন প্রার্থী আসুক। আওয়ামীলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশী আমেরিকান কালচারাল এসোসিয়েশনের সভাপতি আহবাব চৌধুরী খোকন, মিলেনিয়াম টিভির মালিক নূর মোহাম্মদ, বাফার প্রেসিডেন্ট ফরিদা ইয়াসমিন, সিপিএ আব্দুল আহাদ, বাংলাবাজার বিজনেস এসোসেয়েশনের সাধারন সম্পাদক সাইদুর রহমান লিংকন, বিএসিসির সাধারন সম্পাদক নজরুল হক, প্রফেসর আমিনুল ইসলাম চুন্নু, ব্যান্ডস এর সহ সভাপতি কফিল আহমেদ চৌধুরী, বিএসিসির কর্মকর্তা আলাউদ্দিন, নেত্রকোনা সোসাইটির মো: আনোয়ার, কুমিল্লা সোসাইটির সভাপতি আবুল খায়ের আকন্দ, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম বাদশা, সুমানগঞ্জ সোসাইটি সভাপতি মুসাহিদ চৌধুরী, এ্যাডভোকেট আলাউদ্দিন, যুবলীগ নেতা জামাল আহমেদ, হৃদয়ে বাংলাদেশের মাকসুদা আহমেদ প্রমুখ।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ইউএসএঅনলাইনের ও জনতার কন্ঠের সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন সেলিম, খলিল বিরিয়ানি হাউজের মালিক মোঃ খলিলুর রহমান, বাংলাদেশ সোসাইটি অব ব্রঙ্কসের সভাপতি সামাদ মিয়া, সাধারন সম্পাদক শামীম আহমেদ, ইমরান আলী টিপু, মাহবুব চৌধুরী, কফিল চৌধুরী, মোজাফফর হোসেন, কামাল উদ্দিন, বোরহান উদ্দিন, শেখ সফিকুর রহমান, রিপন সরকার, মিজানুর রহমান, খবির ভূইয়া, রোকসানা মজুমদার, সিপিএ জাকির আহমেদ, শাহ বদরুজ্জামন রুহেল।

সভায় এন মজুমদার বলেন, সিটি কাউন্সিল, স্টেট, কেন্দ্র কোথাও আমাদের কোন সিট নাই। টেবিলে কোন স্থান নেই। তাই ওসব জায়গায় আমাদের পক্ষে কেউ কথা বলার নেই। এই নির্বাচনের মাধ্যমে আমরা সেই সুযোগ সৃষ্টি করতে পারি। আমরা একটা পথ তৈরী করে রেখে যেতে যাই। যাতে আমাদের ছেলেমেয়েরা এই পথ ধরে এগিয়ে যেতে পারে। তাই আমাদের ছেলেমেয়েদের ইনভলভ করতে হবে। গণজাগরণ সৃষ্টি করতে পারলে আমাদের সন্তানরাই এদেশে জনগণের প্রতিনিধিত্ব করবে। এর মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের সন্তানদের কিছু দিয়ে যেতে পারবো।

এন মজুমদার আরও বলেন, আমাদের অস্তিত্ব এবং সম্মানের প্রশ্নে আমাকে নির্বাচিত করুন। তিনি বলেন, আমরা যদি আমাদের অধিকার প্রতিষ্ঠা না করি কেউ করবে না। এটাই আমাদের সময় নিজেদের মর্যাদার আসনে দাড় করাবার। তিনি বলেন, আমরা এমন এক মহান জাতির উত্তসূরী যারা একে অপরের প্রতি সমমর্মী, সহানুভুতিশীল। আমরা এককাপ চা ছয়জনে ভাগ করে খাই। করো বাড়িতে কেউ গেলে না খাইয়ে আসতে দেইনা। আমরা কোন মহান জাতির প্রতিনিধি হিসেবে এখানে এসেছি তা জানান দেয়ার জন্যই এখানকার সরকারে, স্থানীয় প্রশাসনে আমাদের প্রতিনিধিত্ব করা প্রয়োজন। কারন আমরা সেবকের জাতি। কিভাবে মানুষকে সেবা দিতে হয় তা আমরা জানি। এই নির্বাচনে আমাকে জয়ী হতে যদি আপনারা সাহায্য করেন তাহলে আমি সেই স্বপ্নেরই বাস্তবায়ন ঘটাবো যে স্বপ্ন বুকে নিয়ে আপনারা এই শহরে এসেছেন, এই শহরে বসবাস করছেন।


অন্যান্য বক্তারা বলেন, দলাদলি না করে আমরা একজনকে প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত করবো। ওনাকে জয়যুক্ত করতে পারল মূলধারার রাজনীতিদের পেছনে আমাদের ছুটতে হবেনা ওরাই আমাদের ডেকে নেবে। তারা বলেন, নির্বাচনে যোগ্য একজন ভালো মানুষের প্রয়োজন। হয়তো মজুমদারের পথ ধরেই একদিন আমাদের সন্তানরাই এদেশের নেতৃত্বে আসবে। তার আগে আমাদের কাউকে পথ দেখাতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন :