• 48

ইসলামে মাতৃভাষা চর্চার গুরুত্ব

ইসলামে মাতৃভাষা চর্চার গুরুত্ব

চলছে ভাষার মাস। শেষ হলো মাতৃভাষা দিবস। এ দিবস ও মাসকে ঘিরে বাংলাভাষীদের মনে থাকে আবেগ, জাগে অনুভূতি। নতুন স্বপ্ন উঁকি দেয় বাংলাকে দিক-দিগন্তে ছড়িয়ে দেয়ার। মনে জাগে মাতৃভাষার গুরুত্ব। কিন্তু মাতৃভাষার প্রতি ইসলাম কেমন গুরুত্ব দিয়ে থাকে? মাতৃভাষা চর্চাকে কোন দৃষ্টিতে দেখে ইসলাম? এ বিষয়ে এফএম-৭৮৬ এর কথা হয়েছে ফ্লোরিডার মসজিদুল মু’মিনীনের খতিব, ইমাম আবদুল হাকিম আজাদী’র সঙ্গে। 

তিনি বলেন, আল্লাহর কাছে হাজার শুকরিয়া বাংলাদেশের মতো এমন একটি সবুজ-শ্যামল দেশে জন্মগ্রহণ করেছি। এখানে জন্মগ্রহণ করার কারণেই আজ বিদেশের মাটিতে নিজেকে বাংলাদেশি বলে পরিচয় দিতে পারছি। এর পাশাপাশি পেয়েছি বাংলার মতো মধুর একটি ভাষা। আসলে ইসলাম মাতৃত্ববোধকে যেমন মূল্যায়ন করে তেমনি অপরিসীম গুরুত্ব দেয় মাতৃভাষা চর্চাকেও। পবিত্র কোরআনুল কারীমের সুরা রুমের ২২ নাম্বার আয়াতের আলোকে আমরা সেটাই দেখতে পাই।

মাঝে মাঝে গর্বে বুকটা ফুলে ওঠে যে আমার প্রিয় মাতৃভাষায় পৃথিবীর ২৬ কোটিরও বেশি মানুষ প্রতিনিয়ত নিজেদের মনের ভাব প্রকাশ করে। প্রকাশ করে আবেগ আর সম্প্রীতির গল্প। তবে আমরা বাংলাভাষীরা কিন্তু অন্য সকল ভাষাকেও শ্রদ্ধা করি। আমরা বিশ্বাস করি প্রতিটি মানুষ তার মাতৃভাষার বিশুদ্ধ চর্চার অধিকার রাখে।

বিশ্বের সবচে’ বিশুদ্ধ মাতৃভাষা চর্চাকারী ছিলেন মানবতার নবী মুহাম্মাদুর রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। আর তাই প্রতিটি মুসলমানকে নিজেদের মাতৃভাষার বিশুদ্ধ চর্চার প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে। কেননা আদ্-দা’ওয়াতু ইলাল্লাহ এর জন্য এর আবশ্যকীয়তা অপরিসীম। তবে এর পাশাপাশি পৃথিবীতে আদ্-দা’ওয়াতু ইলাল্লাহ এর আলো ছড়িয়ে দিতে প্রাসঙ্গিক আরো যে ভাষাগুলো প্রয়োজন সেগুলোর প্রতিও গুরুত্ব দিতে হবে। শিখতে হবে। কেননা ব্যক্তি জীবনে প্রতিটি মুসলমান একজন দাঈ, ইসলামের ধারক ও বাহক।

আপনার মতামত লিখুন :